বাচ্চাদের সমস্যার জন্য প্রাথমিক রুকইয়াহ

বাচ্চাদের নজর লাগা ও এছাড়াও বিভিন্ন ধরনের সমস্যার জন্য নিয়ত করে রুকইয়াহ করতে পারেন। দ্রত ফল পাবেন ইনশা আল্লাহ্‌

রুকইয়া করার নিয়মঃ

বাচ্চাকে সামনে বসিয়ে মাথায় হাত রেখে (হাত রাখতে অসুবিধা হলে দরকার নাই) সুরা ফাতিহা, আয়াতুল কুরসি, সুরা ইখলাস, ফালাক, নাস এগুলো বার বার করে পড়ে পড়ে ফুঁ দিতে থাকুন। অন্তত ১০ থেকে ১৫ মিনিট করেন। সাথে এই দুটি দোয়া পড়তে পারেন-

أُعِيْذُكُمْ بِكَلِمَاتِ اللّٰهِ التَّامَّةِ ، مِنْ كُلِّ شَيْطَانٍ وَهَامَّةٍ ، وَمِنْ كُلِّ عَيْنٍ لَامَّةٍ

উচ্চারণ: উঈযুকুম বিকালিমা-তিল্লা-হিত্তাম্মাহ। মিন কুল্লি শাইত্বা-নিন ওয়া হা-ম্মাহ ওয়ামিন কুল্লি ‘আইনিন লা-ম্মাহ।

اللَّهُمَّ رَبَّ النَّاسِ أَذْهِبِ الْبَاسَ، اشْفِهِ وَأَنْتَ الشَّافِي، لاَ شِفَاءَ إِلاَّ شِفَاؤُكَ، شِفَاءً لاَ يُغَادِرُ سَقَمًا

উচ্চারণ: আল্লা-হুম্মা রাব্বান নাস আযহিবিল বা’স । ইশফিহি ওয়া আনতাশ শা-ফী । লা শিফা-আ ইল্লা শিফা-উক। শিফা-আন লা-ইউগা-দিরু সাকামা ।
এভাবে দিনে দুই-তিনবার রুকইয়াহ করতে পারেন। সমস্যা বেশি থাকলে এর সাথে রুকইয়ার গোসল দেয়াবেন এবং পানি খাওয়াবেন।

রুকইয়াহ গোসলঃ
গোসলের পানিতে সুরা ফাতিহা, আয়াতুল কুরসি আর সুরা ইখলাস, ফালাক, নাস যতবার ইচ্ছা পড়ে ফুঁ দিয়ে ঐ পানি দিয়ে গোসল করান। গোসল আবশ্যক না, সমস্যা বেশি দেখলে করাবেন।

পানি খাওয়ানোঃ
গোসলের পানি তৈরির মতই পানি তৈরি করে খাওয়ান দিনে ২/৩ বার। পানি খাওয়ানোও আবশ্যক না।

অন্যান্যঃ

  • কারো নজর লেগেছে বলে অনুমান করতে পারলে ঐ ব্যক্তির অযুর পানি নিয়ে বাচ্চার গায়ে ঢেলে দিবেন। দ্রুত উপকার পাবেন ইনশা আল্লাহ
  • বাচ্চার কিছু সমস্যা মায়ের কারনেও হতে পারে। বিশেষ করে মা-র স্তন্যপান না করতে চাইলে মায়ের উচিত নিজেরও সমস্যা আছে কিনা যাচাই করে রুকইয়াহ করা। এক্ষেত্রে তিনি বদনজরের সেলফ রুকইয়াহ করতে পারেন এই লেখা ফলো করে-  সেলফ রুকইয়াহ গাইড (বদনজর)
  • অভিভাবকদের ফরজ, ওয়াজিবগুলো ভালভাবে আদায়ের সাথে সাথে সুরক্ষার আমলগুলি করা উচিত। আর নিজে আমলগুলো করার পর বাচ্চাকেও ফুঁ দিয়ে দিবেন। অথবা হিফাজতের নিয়াতে শুধু ৩ কুল পড়ে ফুঁ দিবেন – মাসনুন আমল: যাদু, জ্বিন এবং অন্যান্য ক্ষতি থেকে বাচার উপায় : যাদুগ্রস্ত ১২
  • সন্ধ্যার আগে দরজা জানালা বন্ধ করে দেয়া উচিত। সন্ধ্যার খানিক পরে খুলে দিতে পারে। বাচ্চাদের চেহারাওয়ালা পুতুল ইত্যাদির খেলনা দেয়া উচিত না। সন্ধ্যার সময় বাইরে থাকতে দেয়া উচিত না। আরো কিছু বিষয় এখানে জানতে পারবেন – জিন ও শয়তান থেকে আত্মরক্ষায় সহায়ক কিছু উপায়
  • রুকইয়াহ সংক্রান্ত কোন প্রশ্ন থাকলে আগে এই পোস্টে উত্তর খুঁজবেন – FAQ : বহুল জিজ্ঞাসিত প্রশ্নের উত্তর – ওখানে উত্তর না পেলে প্রশ্ন করবেন।
  • হাদীসে আরো কিছু দুয়ার কথা পাওয়া যায় রুকইয়ার জন্য। সেসব দিয়ে রুকইয়াহ করতে চাইলে এবং বাচ্চাদের সমস্যার জন্য রুকইয়ার ব্যাপারে আরো বিস্তারিত জানতে এই গাইডটি পড়ুন… সেলফ রুকইয়াহ গাইড (বাচ্চাদের সমস্যা)

মন্তব্য করুন