Ruqyah Support BD

আয়াতুল কিতাল এর সংক্ষিপ্ত তালিকা

Advertisement

মুখতাসার আয়াতুল কিতাল ‘হত্যা, যুদ্ধ, মৃত্যু এবং ধ্বংস’ সংক্রান্ত আয়াতসমূহের সংক্ষিপ্ত তালিকা।

এইগুলো কেন পড়ে?

১। দীর্ঘ দিন জিনে আক্রান্ত রোগীগণ জিনদের ধ্বংস/ক্ষতির হওয়ার নিয়াতে।
২। জ্বিনকে শাস্তি দেয়ার নিয়তে।
৩। যাদুর মাধ্যমে শরীরে চালান জিন আসলে, তাকে ধ্বংস করার নিয়তে।

তালিকাঃ
১। সূরা আলে ইমরানঃ ১৭-১৮
২। সুরা নিসা। আয়াতঃ ৭৫-৭৬,৭৮,৮৪
৩। সুরা মায়িদাহঃ৩৩
৪। সুরা আনফালঃ১৭-১৮
৫।সূরা তাওবাঃ৫
৬।সূরা আম্বিয়াঃ৩৪,৩৫
৭।সূরা মূমিনুনঃ১৫-১৬
৮।সূরা আনকাবুতঃ৫৭
৯।সূরা আস সাজদাহঃ১১
১০।সূরা আহযাবঃ১৬-১৭

লক্ষনীয়ঃ
এই আয়াতগুলো পড়ে পানিতে ফু দিয়ে খাওয়া যাবে, পানিতে ফু দিয়ে গোসল করাও যাবে। অলিভ ওয়েলে ফু দিয়ে সারা গায়ে মালিশ করা যাবে। এছাড়া সামনাসামনি জিন আক্রান্ত ব্যক্তির রুকইয়ার সময় এই আয়াতগুলো পড়ে মৃদু প্রহার করলে (রুমাল বা স্কেল দিয়ে একদম আস্তে আস্তে মারলে) শয়তান জিনের অনেক কষ্ট হয়।
যেহেতু যুদ্ধ, জিহাদ, মৃত্যু সংক্রান্ত আয়াত সেহেতু এইগুলো পড়লে একজন অসুস্থ মানুষের গা গরম হওয়া, গা জ্বালাপোড়া করা, বুক ধড়ফড় করা, অস্থির লাগার অনুভূতি হতে পারে, জিন আক্রান্ত রোগী মাঝেমাঝে অজ্ঞান হয়ে যেতে পারে। যাইহোক, রুকইয়ার শেষে যেকোনো রুকইয়াহর গোসল করলে প্রশান্তি বোধ হতে পারে। খুব বেশি খারাপ লাগলে এর পরে আপনি সাকিনার আয়াতগুলো তেলাওয়াত করতে পারেন।

যতবার খুশি ততবার করে পড়া যাবে। যখন খুশি পড়া যাবে। একবারে কমপক্ষে ৩০-৪০ মিনিট পড়া উচিত। (এর পাশাপাশি অন্য কিছু তেলাওয়াত করতে বলা হলে আরও কম সময় তেলাওয়াত করলেও সমস্যা নেই ইন শা আল্লাহ।

** আয়াতে কিতাল (সংক্ষিপ্ত ভার্শন) পিডিএফ এই লিংকে পাওয়া যাবে। – রুকইয়ার আয়াত, দোয়া এবং অন্যান্য পিডিএফ **

নোটঃ রুকইয়াহ সাপোর্ট বিডি গ্রুপের ওয়েব সাইট থেকে পিডিএফ নামিয়ে আয়াতগুলো লিস্ট করা হয়েছে। কাজেই মূল ক্রেডিট যিনি পিডিএফ বানিয়েছেন তার। কোনো ভুলভ্রান্তি হলে আমার। মোটামুটি চেক করে লিস্ট করা হয়েছে। তারপরও ভুল থাকা অস্বাভাবিক নয়। জানালে চেষ্টা করবো ইন শা আল্লাহ সংশোধনের।

 


লিখেছেন, আহমাদ আম্মার

মন্তব্য করুন