বিভাগ: প্রচলিত ভুল

রুকইয়ার সমস্যা সমগ্র ৩ :আয়াত কাস্টমাইজেশনের ধোকায় পড়া

[ক] রুকইয়া চলাকালীন অনেকে বিষয় ভিত্তিক আয়াতের ইফেক্ট দেখে ধোকায় পড়েন। যেমন, জ্বিনের আয়াতগুলো পড়লে কষ্ট বেশি হচ্ছে, আর সিহরের আয়াত পড়লে কম হচ্ছে। অথবা জিনের আয়াতে কষ্ট হয়নি শুধু জাদুর আয়াতগুলোতে সমস্যা হচ্ছে, তখন অনেক রাকি খুব দ্রুত এই সিদ্ধান্তে উপনীত হয়ে বসেন যে, রোগীর জাদু-টোনার সমস্যা আছে। বাস্তবতা হল, এটা এমন কোন ধ্রুব […]

রুকইয়ার সমস্যা সমগ্র ২: কয়েকজনের জন্য একসাথে রুকইয়াহ করা

ক] অনেক সময় রাকি একসাথে কয়েকজনকে রুকইয়াহ একসাথে করেন। কেউ কেউ এটাকে মাস এক্সোর্সিজম (mass exorcism) বা মাস রুকইয়া বলে। ইউটিউবের কোন কোন ভিডিওতে দেখা যায়, একটা রুম অথবা মসজিদ ভর্তি মানুষ বসে আছে, সামনে একজন রাকি দাঁড়িয়ে রুকইয়ার আয়াত পড়ছে। রোগীদের কেউ কেউ ঘুমাচ্ছে, কারও জিনের সমস্যা আছে সে লাফালাফি শুরু করে দিয়েছে (চর্মোনাইয়ের […]

ওমরাহ করলে জিন যাদুর সমস্যা চলে যায়?

রুকইয়া মিথ – ৮ —– প্রচলিত একটা ভুল ধারনা হচ্ছে, হজ্জ বা ওমরাজ করলে জিন/যাদুর সমস্যা ভালো হয়ে যায়। আসলে এমন না বিষয়টা। হ্যা, বাইতুল্লাহর ওখানে দোয়া করলে কবুল হওয়ার সম্ভাবনা বেশি; সেটা ভিন্ন কথা। সে হিসেবে কারও সামর্থ্য থাকলে যেতে পারেন। তবে বিকল্প পরামর্শ চাইলে বলবো, এধরনের বিপদের জন্য দোয়া কবুল করানো লাগলে রেগুলার […]

রুকইয়ার সমস্যা সমগ্র – ১ : অন্যের জন্য রুকইয়াহ করা

—————— [ক] বিসমিল্লাহ, এই সিরিজে আমরা রুকইয়াহ শারইয়াহ’র মধ্যে যেসব ভুল, আপত্তিকর কিংবা পরিহার্য বিষয় মিশ্রিত হয়, সেসব নিয়ে আলোচনা করবো। আল্লাহ চায় তো এতে আমাদের দেশে প্রায় বিস্মৃত যে সুন্নাহটির পুনর্জাগরণ হচ্ছে, এটি অনেক ভুল-ভ্রান্তি এবং নোংরামির হাত থেকে রক্ষা পাবে। আর যারা সাধারণ দ্বীনি ভাই-বোন যারা সচরাচর রুকইয়াহ নিয়ে খুব একটা ঘাটাঘাটি করেন […]

বদনজর এবং প্রচলিত কুসংস্কার

ছোট বাচ্চাদের বদনজর থেকে বাঁচানোর জন্য অনেকেই কালো টিপ ব্যবহার করেন। এতে নাকি বাচ্চার নজর লাগে না। অনেকে আবার আঙ্গুল কামড়ে দেন! আবার নজর লাগলে তা কাটানোর জন্য উল্টাপাল্টা কাজ করেন। কেউ কেউ হিন্দুয়ানী প্রথায় টাকা ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে নজর কাটান। কেউবা মরিচ, পানপাতার দিয়ে। আর অদ্ভুত হলেও সত্য যে, এগুলোতে কাজ হয়। কারন এতে থাকে […]

কে আমাকে যাদু করেছে?

লিখেছেনঃ উম্মে আব্দুল্লাহ ঘটনা ১: রুকিয়া নিয়ে কাজ করার প্রথমদিকের কথা এক আপু ইনবক্সে তার সমস্যা জানানোর পর সমাধান না চেয়ে পেছনের কারন জানতে চাইলেন। সমস্যাটা উনার ছিলো না। ছিলো উনার মামীর। সমস্যা শুনে মনে হচ্ছিলো বদনজর আর সিহরের সমস্যা(বাকি আল্লাহ তা’আলাই ভালো জানেন)। উনাকে বললাম আপু এইগুলা হতে পারে। মজার ব্যাপার হচ্ছে উনারা নিজেরাও […]

রুকইয়াহ দ্বারা সমস্যার সমাধান বিষয়ে

লিখেছেনঃ উম্মে আব্দুল্লাহ রুকিয়ার সাথে সম্পৃক্ততার পর থেকে আল্লাহ রব্বুল আ’লামীন অনেক কিছু দেখা-শুনার সুযোগ করে দিয়েছেন আলহামদুলিল্লাহ। আপুরা তাদের নানা সমস্যার কথা শুনিয়েছেন। সাথে সমাধানের উপায় জানতে চেয়েছেন। কেউ কেউ সরাসরি রুকিয়া করাতে চেয়েছেন। কেউবা আশাই ছেড়ে দিয়েছেন। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই আমার সাজেশন ছিলো, “আপু দু’আ করেন, রব্বুল আ’লামীনের কাছে সাহায্য চান আর ইস্তেগফার করেন […]

বুর্জগ ব্যক্তি ছাড়া রুকইয়াহ করা যাবে না?

রুকইয়া করতে অনেক বুজুর্গ টাইপের কেউ হওয়া লাগেনা। আল্লাহ তা’আলা বলেছেন- “কোরআন মুমিনদের জন্য রহমত এবং শিফা” [সুরা বনি ইসরাইল, ৮২] “বিশ্বাসীদের জন্য হিদায়াত এবং শিফা” [সুরা হামিম সাজদা, ৪৪] অতএব মুমিন বা বিশ্বাসী হওয়াই যথেষ্ট। এমনকি আপনি হয়তো দেখেছেন, অনেক হিন্দু বিশ্বাস করে কোরআনের আয়াত পড়ে ফু দিয়ে দিলে উপকার হয়, তারা হুজুরদের থেকে […]

মেয়েরা কি রুকইয়া করতে পারেনা?

অবশ্যই পারে, রাকি হওয়ার জন্য ছেলে হওয়ার বাধ্যবাধকতা নেই। আর স্পষ্ট হাদিস আছে এব্যাপারে। সহিহ ইবনে হিব্বানের ৬২৩২নং হাদিস – আয়েশা রা. থেকে বর্ণিত রাসুল সল্লাল্লহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম আমার ঘরে প্রবেশ করলে, তখন একটা মেয়ের চিকিৎসা করা হচ্ছিল অথবা রুকইয়া করা হচ্ছিল। রাসুল সল্লাল্লহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বললেন – কোরআন দ্বারা তার চিকিৎসা করো। রাসুল সল্লাল্লহু […]

অমুসলিমদের ওপর কি রুকইয়া করা যায় না?

সুরা বানি ইসরাইলের এক আয়াতে বলা আছে- “আমি কোরআনে এমন কিছু নাযিল করি যা শিফা এবং মুমিনদের জন্য রহমত” এটা দেখে অনেকে ভাবেন যে রুকইয়া বোধহয় শুধু মুমিনদের জন্যই। কিন্তু বাস্তবতা হচ্ছে, কোরআন মুমিনদের জন্য আল্লাহর অনুগ্রহ তো এটা যেমন সত্য, আর বিশ্ববাসীর জন্যও আল্লাহর রহমত এটাও ঠিক তেমনই সত্য। সবচেয়ে বড় কথা হচ্ছে, সাহাবায়ে কিরাম […]